ইউএনওর ওপর হামলা

মূল সন্দেহভাজন আসাদুল ৭ দিনের রিমান্ডে

বিজ্ঞাপন
default-image

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার মামলায় প্রধান আসামি আসাদুল ইসলামের (৩৫) সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ রোববার বিকেল পাঁচটায় মামলার তদন্তকারী সংস্থা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) আসামির ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে দিনাজপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মনিরুজ্জামান সরকার সাত দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দিনাজপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক ইমাম জাফর রিমান্ডের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে শনিবার দিবাগত রাত তিনটার সময় আসাদুলকে ডিবি পুলিশের হাতে হস্তান্তর করেছে ঘোড়াঘাট থানা-পুলিশ। তারপর আসাদুল ইসলাম শারীরিকভাবে কিছুটা অসুস্থ হয়ে পড়েন। ডিবি পুলিশ তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। পরে বিকেল পাঁচটার সময় আসাদুলকে আদালতে হাজির করা হয়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইউএনও ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শুক্রবার ভোররাতে আসাদুল ইসলামকে হাকিমপুর উপজেলার কালীগঞ্জ এলাকায় বোনের বাসা থেকে আটক করে পুলিশ। পরে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি কার্যালয়ে। সেদিন রাতেই শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয় আসাদুলকে। শনিবার রাতে ঘোড়াঘাট পুলিশের কাছে আসাদুলকে হস্তান্তর করে র‌্যাব।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত বুধবার রাতে ঘোড়াঘাট উপজেলা পরিষদ ক্যাম্পাসে ভেন্টিলেটর ভেঙে ইউএনওর সরকারি বাসায় ঢুকে ওয়াহিদা খানম ও তাঁর বাবা ওমর আলীর ওপর হামলা করা হয়। গুরুতর আহত ওয়াহিদাকে প্রথমে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে বৃহস্পতিবার বিকেলে হেলিকপ্টারে তাঁকে ঢাকার এনে ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস অ্যান্ড হসপিটালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার রাতে ওয়াহিদার মাথায় অস্ত্রোপচার হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন