বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উপজেলার সোলাদানা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এনামুল হক বলেন, আজ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ইউএনওর সরকারি মুঠোফোন নম্বর থেকে ইউএনওর সহকারী পরিচয় দিয়ে ফোন করা হয়। এ সময় ওপর প্রান্ত থেকে একজন উপজেলার একটি রাস্তার কাজ পাইয়ে দিতে তাৎক্ষণিক ৩০ হাজার টাকা দাবি করেন। ব্যাপারটি প্রতারণা বুঝতে পেরে তিনি ফোনের লাইনটি কেটে দেন।

এ বিষয়ে ইউএনও এ বি এম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী বলেন, উপজেলার কয়েকজন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে এভাবে ফোন করে টাকা চাওয়া হয়েছে। চেয়ারম্যানরা তাৎক্ষণিক তাঁকে ফোন করে ব্যাপারটি জানিয়েছেন। তাঁর সরকারি মুঠোফোন নম্বর ক্লোন করে একটি প্রতারক চক্র এমন করছে। এর আগেও এমন অভিযোগ পাওয়া গিয়েছিল। এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তিনি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন