বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইউএনও বলেন, ‘তাঁর মুঠোফোন নম্বর ক্লোন করে একটি প্রতারক চক্র রোববার দিনভর সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ব্যবসায়ী ও স্থানীয় ব্যক্তিদের কাছে চাঁদা দাবি করেছে। বিষয়টি তিনি জানতে পেরে তাৎক্ষণিক সব ইউপি চেয়ারম্যান ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের ফোন করে সতর্ক করে দিয়েছেন। এ ছাড়া মুঠোফোন নম্বর ক্লোন হওয়ার বিষয়টি সবাইকে জানিয়ে দিতে সদর উপজেলার ফেসবুক পেজে এ–সংক্রান্ত একটি স্ট্যাটাসও দেওয়া হয়েছে।’ এ ঘটনায় নরসিংদী মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হবে।

ইউএনও বলেন, ইউএনও কার্যালয় কখনো এভাবে টাকা নেয় না। তিনি সবাইকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন।

নরসিংদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সওগাতুল আলম জানান, ইউএনও মেহেদী মোর্শেদের নম্বর ক্লোন হওয়ার বিষয়টি মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রতারক চক্রকে শনাক্ত করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন