বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দণ্ডপ্রাপ্ত আবদুল বাছিত পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনে কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য পদপ্রার্থী (ফুটবল প্রতীক)। তাঁর বাড়ি সদর ইউনিয়নের ভেড়াছড়া গ্রামে।

বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ২০১৬ সালে সংরক্ষিত বনের গাছ কাটার অভিযোগে এবং গাছ চুরির প্রতিরোধকালে বনকর্মীদের অবরুদ্ধ করে রাখার চেষ্টার অভিযোগে আবদুল বাছিতকে আসামি করে একটি মামলা করে বন বিভাগ। মামলার রায়ে আদালত আবদুল বাছিতকে দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন। এ ছাড়া তাঁকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ২ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার বলেন, তাঁরা আদালতের রায়ের কোনো অনুলিপি পাননি। কোনো ব্যক্তি সংক্ষুব্ধ হয়ে রায়ের কপিসহ লিখিত অভিযোগ নির্বাচন কমিশনে পাঠাতে পারেন। নির্বাচন কমিশন যে সিদ্ধান্ত দিবে, সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন