সন্দ্বীপ উপজেলার ইউএনও সম্রাট খীসা প্রথম আলোকে বলেন, সম্প্রতি অস্বাভাবিক একটি ভাড়ার তালিকা দেখেছেন তিনি। যাত্রীদের হয়রানির কথা বিবেচনায় গত শনিবার বিকেলে অটোরিকশার মালিকদের ডেকেছিলেন। এরপর মালিকপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করে একটি যৌক্তিক ভাড়া নির্ধারণ করেন। ভাড়ার তালিকার বাইরে কেউ যেতে চাইলে কিলোমিটারে জনপ্রতি সাড়ে তিন টাকা বাড়তি ভাড়া দিতে হবে। তবে ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেলের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়নি। সেটিও কয়েক দিনের মধ্যে নির্ধারণ করে দেবেন বলে জানান তিনি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন