বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অভিযান চালানো দলের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলা সদরের শ্যামল স্টোরের মালিক শ্যামল দত্ত ঈদের আগে কম দামে বিপুল পরিমাণ সয়াবিন ও শর্ষের তেল কিনে মজুত করেন। এখন বেশি দামে সেই তেল বিক্রি করছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজ বেলা ১১টার দিকে ওই দোকানের গুদামে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে গুদাম থেকে ১০ হাজার লিটার খোলা সয়াবিন তেল, ১ হাজার ২৪৪ লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল এবং ৭ হাজার লিটার শর্ষের তেল উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার করা তেলের মধ্যে বোতলজাত সয়াবিন তাৎক্ষণিকভাবে ক্রেতাদের কাছে আগের দামে বিক্রি করা হয়। পাশাপাশি তেল মজুতের দায়ে দোকানের মালিককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পাবনা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জহিরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, বাজারে খোলা তেলের কোনো ঘাটতি নেই। বোতলজাত তেলের কিছুটা ঘাটতি থাকায় উদ্ধার করা বোতলজাত তেল তাৎক্ষণিকভাবে আগের দামে বিক্রি করা হয়। দোকানের মালিককে খোলা তেলগুলো আগের দামে বিক্রির নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে তিনি জানান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন