বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কক্সবাজার ১৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নাঈমুল হক বলেন, রোববার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। দেলোয়ার রোহিঙ্গা শিবিরের সন্ত্রাসী বাহিনীর মুন্না গ্রুপের সেকেন্ড ইন কমান্ড এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দেলোয়ারকে রক্ষা করতে তাঁর সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোড়ে। আহত পুলিশ সদস্যদের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

নাঈমুল হক আরও বলেন, দেলোয়ারকে গ্রেপ্তারের পর উখিয়া থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। এর পর থেকে পুরো এলাকায় এপিবিএনের তৎপরতা বৃদ্ধি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের অক্টোবরে রোহিঙ্গা শিবিরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মুন্না ও আনাস বাহিনীর দফায় দফায় সংঘর্ষের সময় নয়জন রোহিঙ্গা নিহত হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন