কক্সবাজার র‍্যাব-১৫-এর মিডিয়া কর্মকর্তা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আবু সালাম চৌধুরী প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, গ্রেপ্তার জুবাইর টেকনাফের ২১ নম্বর চাকমারকূল ক্যাম্পের ব্লক-বি/৬-এর বাসিন্দা লোকমান হাকিমের ছেলে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়েরের পর ইয়াবা ও টাকাসহ গ্রেপ্তার ব্যক্তিকে উখিয়া থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যাওয়া শামসুল আলমকে সেখানে পলাতক আসামি করা হয়েছে। তিনি একই ক্যাম্পের মৃত নাজির হোসাইনের ছেলে।

গ্রেপ্তার ও পলাতক দুই রোহিঙ্গা মাদক কারবারি টেকনাফের ২১ নম্বর চাকমারকূল ক্যাম্পের বাসিন্দা।
default-image

আবু সালাম চৌধুরী বলেন, আজ ভোর পাঁচটার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের থাইংখালী সেতু এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় পালানোর চেষ্টাকালে মোহাম্মদ জুবাইরকে আটক করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে তাঁর সহযোগী শামসুল আলম পালিয়ে যান। এ সময় আটক জুবাইরের দেহ তল্লাশি করে ৩০ হাজার ইয়াবা এবং ইয়াবা বিক্রির ৯৩ হাজার ৫০০ টাকা পাওয়া যায়।

উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহমেদ সঞ্জুর মোরশেদ বলেন, ইয়াবা ও মাদক বিক্রির টাকাসহ গ্রেপ্তার ব্যক্তিকে বিকেলে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন