বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয় ও সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সূত্র জানায়, এবারের এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের সময়সীমা গতকাল রোববার শেষ হয়। উপজেলা মতলব সরকারি কলেজ, রয়মনেন নেছা মহিলা ডিগ্রি কলেজ, নারায়ণপুর ডিগ্রি কলেজ ও মুন্সীরহাট কলেজে উচ্চমাধ্যমিকের শিক্ষার্থীরা ভর্তি হয়। ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে উল্লিখিত চার কলেজে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হয় ১ হাজার ৪৪১ শিক্ষার্থী। ফরম পূরণ করে ১ হাজার ৬৩ জন। ফরম পূরণ করেনি ৩৭৮ জন।

এর আগে ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হয় ১ হাজার ১০০ শিক্ষার্থী। এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় ১ হাজার ৫৩ জন। ফরম পূরণ করেনি ৪৭ জন, যা ভর্তি হওয়া মোট শিক্ষার্থীর ৪ শতাংশের কিছু বেশি। ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে ১ হাজার ২৭০ জনের মধ্যে ফরম পূরণ করেনি ১৫১ জন। প্রায় ১২ শতাংশ শিক্ষার্থী ফরম পূরণ করেনি। অর্থাৎ, গত বছরের তুলনায় এ বছর ঝরে পড়ার হার দ্বিগুণের বেশি।

নারায়ণপুর ডিগ্রি কলেজের এক শিক্ষার্থী বলে, অনেক দিন ধরে কলেজ বন্ধ। অপেক্ষা করতে করতে কিছুটা হতাশ হয়ে পড়ে। পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভালো না হওয়ায় লেখাপড়া ছেড়ে টুকটাক দোকানদারির কাজ করছে। এবার এইচএসসির ফরম পূরণ করেনি এ জন্য।

* করোনার কারণে আর্থিক সংকটে পড়ে অনেকে পরীক্ষা দিচ্ছে না। * দীর্ঘদিন ক্লাস বন্ধ থাকায় অনেক ছাত্রীর বিয়ে হয়ে গেছে।

মতলব সরকারি কলেজের মানবিক শাখার শিক্ষার্থী জান্নাত আক্তার বলেন, ‘সংসারে খুব অভাব। এলিগা বাবা আমারে বিয়ে দিয়েছেন। ফরম পূরণও করি নাই।’

উপজেলার উপাদী এলাকার জামাল মিয়া বলেন, তাঁর মেয়ে এবার এইচএসসি দেওয়ার কথা থাকলেও ফরম পূরণ করেনি। মেয়েকে বেশি লেখাপড়াও করাতে চান না। যতটুকু পাস করেছে তা-ই যথেষ্ট।

মতলব সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক রবিউল ইসলাম মিজির বলেন, এবার এইচএসসির ফরম পূরণের জন্য তাঁর কলেজের সব শিক্ষার্থীর সঙ্গে শিক্ষকেরা একাধিকবার যোগাযোগ করেন। এরপরও অনেকে ফরম পূরণ করেনি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবদুর রহিম খান বলেন, করোনার কারণে দীর্ঘদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। এ কারণে দরিদ্র পরিবারের অনেক শিক্ষার্থী পড়াশোনা ছেড়ে টুকটাক কাজ করছে। সেখান থেকে তারা আর ফিরে আসতে পারছে না। অনেক ছাত্রীর বিয়ে হয়ে গেছে। এ ছাড়া অভিভাবকদের সচেতনতার অভাবসহ আরও নানা কারণে এবার অনেক শিক্ষার্থী এইচএসসির ফরম পূরণ করেনি। ভবিষ্যতে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়াতে উদ্যোগ নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন