default-image

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিনকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক ইমরুল কায়েস প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে রোববার সন্ধ্যায় ইউএনও আদিতমারী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

ইউএনওর জিডিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ১২ নভেম্বর আদিতমারী উপজেলা পরিষদের মাসিক সাধারণ সভায় ভিজিডি ও মাতৃত্বকালীন ভাতার তালিকায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিজের অংশ দাবি করেন। তবে সভায় বিধি অনুযায়ী তালিকা প্রস্তুত করার জন্য মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তাকে বলা হলে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্ষিপ্ত হয়ে সভা অসমাপ্ত রেখে চলে যান। সভা কক্ষ থেকে বের হয়ে তিনি তাঁর ব্যক্তিগত সহকারীকে ইউএনওর কার্যালয়ের সিসিটিভি ক্যামেরার বিদ্যুৎ-সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার নির্দেশ দেন।

বিজ্ঞাপন
উপজেলা চেয়ারম্যানের হুমকির বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। জীবননাশের হুমকি রয়েছে বিধায় সাধারণ ডায়েরি করেছি
মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন, ইউএনও, আদিতমারী

জিডিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ১২ নভেম্বর আনুমানিক দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলা উন্নয়ন সভা শেষে ইউএনও অন্য কর্মকর্তাদের নিয়ে নিজ কার্যালয়ের কক্ষে ফিরছিলেন। এ সময় সিসিটিভি ক্যামেরার বিদ্যুৎ-সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার কারণ জানতে চাইলে উপজেলা চেয়ারম্যান ইউএনওকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং একপর্যায়ে বলেন, ‘বেশি কথা বললে পিটিয়ে লাশ নরসিংদী পাঠিয়ে দেব। উপজেলা পরিষদ কি তোর বাবার সম্পত্তি, উপজেলা পরিষদ কি তুই চালাবি।’

এ বিষয়ে আদিতমারীর ইউএনও মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন বলেন, ‘উপজেলা চেয়ারম্যানের হুমকির বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। জীবননাশের হুমকি রয়েছে বিধায় সাধারণ ডায়েরি করেছি।’

তবে এ বিষয়ে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক ইমরুল কায়েস বলেন, ‘আমি ইউএনওকে কোনো রকম হুমকি-ধমকি দিইনি বরং উনি (ইউএনও) আমাকে বলেছেন, “পাঁচ বছরের জন্য চেয়ারম্যান হয়ে ভাব দেখান নাকি। একবার আমরা খেপলে সরকারের চেয়ার থাকে না, আপনি তো দুই পয়সার উপজেলা চেয়ারম্যান।”’ তবে আদিতমারীর ইউএনও এ ধরনের মন্তব্য করার অভিযোগ সত্য নয় বলে দাবি করেছেন।

এ বিষয়ে আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘আদিতমারীর ইউএনওর স্বাক্ষর করা একটি সাধারণ ডায়েরি পেয়েছি। এতে আদিতমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফারুক ইমরুল কায়েস তাঁকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

মন্তব্য পড়ুন 0