default-image

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, উপমহাদেশের দেশগুলোর মধ্যে কোভিড-১৯ (করোনাভাইরাস) মোকাবিলার সক্ষমতায় সবার ওপরে আছে বাংলাদেশ। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক অর্থনীতিবিষয়ক গণমাধ্যম ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে আজ শুক্রবার রংপুর সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

ওই প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে হাছান মাহমুদ আরও বলেন, করোনা মোকাবিলায় পুরো পৃথিবীর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ২০তম।

শুক্রবার বাংলাদেশ টেলিভিশনের রংপুর উপকেন্দ্র এবং বাংলাদেশ বেতার কেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন মন্ত্রী। পরে সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি। এ সময় করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় ভারত থেকে ভ্যাকসিন আমদানির প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে কোনো শঙ্কা নেই। করোনা ভ্যাকসিন চুক্তি অনুযায়ী যথাসময়ে আসবে।  

দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ হলে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে (আইসিটি অ্যাক্ট) গণমাধ্যমকর্মীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে দায়ের হওয়া মামলা প্রসঙ্গে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বাংলাদেশে গণমাধ্যম যে পরিমাণ স্বাধীনতা ভোগ করে, তা পৃথিবীর অনেক দেশে করতে পারে না। কোনো সময় অসত্য ও ভুল সংবাদ পরিবেশিত হওয়া সমীচীন নয়। সেটি সবাইকে খেয়াল রাখতে হবে। আর কারও বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা হওয়াও উচিত নয়। যদি কেউ হয়রানির শিকার হন, তা আমার দৃষ্টিগোচর হলে যথাযথ ব্যবস্থা নিই।’

বিজ্ঞাপন

অবাধ তথ্যপ্রবাহ নিশ্চিতে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ঢাকা ও চট্টগ্রামের বাইরে দেশের আরও ছয়টি বিভাগীয় শহরে বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) একটি করে পূর্ণাঙ্গ সম্প্রচার কেন্দ্র তৈরি করা হচ্ছে। দুই থেকে আড়াই বছরের মধ্যে রংপুর কেন্দ্রের কাজ শেষ হবে।

সার্কিট হাউসে মন্ত্রী মতবিনিময়ের সময় আরও উপস্থিত ছিলেন রংপুর জেলা প্রশাসক আসিব আহসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মধুসূদন দত্ত, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন