default-image

সিলেটে বিদেশগামী যাত্রীদের মধ্যে করোনাভাইরাস আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। গত তিন দিনে ৩৫৫ জন বিদেশগামী যাত্রীর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে করোনা পজিটিভ এসেছে ৪৫ জনের। শনাক্তের হার প্রায় ৮ শতাংশ। তাঁদের বেশির ভাগেরই উপসর্গ নেই।

সিলেট সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে ও বিদেশগামী যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

২৩ জুলাই থেকে সিলেট বিভাগের বিদেশগামী যাত্রীদের সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তত্ত্বাবধানে নিবন্ধন ও নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজের পরীক্ষাগারে।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, বিদেশগামী যাত্রীদের করোনাভাইরাস নেগেটিভ সনদ বাধ্যতামূলক হওয়ায় সিলেট বিভাগের যাত্রীদের নমুনা পরীক্ষায় নিবন্ধনের জন্য সিভিল সার্জন কার্যালয়কে নির্ধারণ করা হয়। ২২ জুলাই থেকে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে বিদেশগামী যাত্রীদের নমুনা পরীক্ষার জন্য নিবন্ধন শুরু হয়। পরের দিন থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। বিদেশগামী যাত্রীদের করোনার নমুনা পরীক্ষার জন্য দুই কপি ছবি, পাসপোর্টের ফটোকপি, নির্ধারিত তারিখের বিমান টিকিটের ফটোকপি এবং করোনা পরীক্ষার ফি নিয়ে প্রথম দফায় নিবন্ধন ও পরের দিন নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। নমুনা সংগ্রহের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ফলাফল দেওয়া হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার ১৭৩ জন বিদেশগামী যাত্রীর নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে করোনা পজিটিভ এসেছে ৩৪ জনের। শুক্রবার নমুনা সংগ্রহ করা হয় ৯৪ জনের। এর মধ্যে মাত্র একজনের পজিটিভ। শনিবার নমুনা সংগ্রহ করা হয় ৮৮ জনের। এর মধ্যে ১০ জনের ফল পজিটিভ। আজ রোববার সংগ্রহ করা হয়েছে ১২৩ জনের নমুনা।

বিদেশগামী যাত্রীদের মধ্যে করোনার উপসর্গ দেখা না দিলেও পজিটিভ ফল আসায় আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। সিলেট নগরের রায়নগর এলাকার ফ্রান্সের এক প্রবাসী (৩৮) বলেন, আজ রোববার তাঁর বিমানের টিকিট করা ছিল। এ জন্য তিনি বৃহস্পতিবার নমুনা দেন। তাঁর কোনো উপসর্গ ছিল না। কিন্তু ফল এসেছে পজিটিভ। তিনি বিমানের টিকিট বাতিল করেছেন। বর্তমানে আইসোলেশনে রয়েছেন।

মৌলভীবাজারের বড়লেখার এক প্রবাসী (৩৫) শনিবার নমুনা দেন। তাঁর ফলও পজিটিভ এসেছে। তিনি বলেন, তাঁর কোনো উপসর্গ নেই। প্রায় দুই মাস আগে দেশে এসেছেন। ২৮ জুলাই তাঁর ওমান ফিরে যাওয়ার কথা ছিল। সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, কমপক্ষে ১৪ দিন তাঁকে আইসোলেশনে থাকতে হবে।

সিলেটের সিভিল সার্জন প্রেমানন্দ মণ্ডল জানান, বিদেশগামী যাত্রীদের ফ্লাইটের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে করোনা পরীক্ষার জন্য নাম নিবন্ধন, নমুনা সংগ্রহ ও ফলাফল দেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে ৪৫ জনের ফল পজিটিভ এসেছে। তাঁদের বেশির ভাগেরই উপসর্গ নেই।

এভাবে কোনো উপসর্গ ছাড়াই নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ ফল আসায় আতঙ্কে রয়েছেন প্রবাসীরা। সিলেটের দক্ষিণ সুরমার এক দম্পতি আগামী ১ আগস্ট ফ্রান্সে ফিরে যাওয়ার টিকিট করেছেন। ২৯ জুলাই তাঁদের নমুনা সংগ্রহ করার কথা রয়েছে। কোনো উপসর্গ ছাড়াই অনেক প্রবাসীর করোনা শনাক্ত হওয়ার খবরে তাঁরা আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন।

এ অবস্থায় বিদেশগামী যাত্রীদের আতঙ্কিত না হয়ে নিজেদের নিরাপদ রাখতে কঠোরভাবে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন সিভিল সার্জন প্রেমানন্দ মণ্ডল। তিনি বলেন, যেসব বিদেশগামী যাত্রীর করোনা পজিটিভ ফল এসেছে, তাঁরা ১৪ থেকে ২১ দিন আইসোলেশনে থাকার পর ফের নমুনা পরীক্ষা করিয়ে ফল নেগেটিভ এলে বিদেশ যেতে পারবেন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন