default-image

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত প্রশাসনের কর্মকর্তাদের অপসারণ ও শাস্তি চেয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদল। মিছিল থেকে তাঁরা সাভারে হত্যার শিকার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী মোস্তাফিজুর রহমানের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবি করেন। সোমবার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক থেকে ছাত্রদলের নেতা–কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন।

তবে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতান আহমেদ অভিযোগ করেন, মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা গেটে যেতেই মতিহার থানার পুলিশ তাঁদের ধাওয়া করে। এতে পুলিশের গাড়ির ধাক্কায় তাঁদের কয়েকজন আহত হন। মিছিল থেকে পুলিশ মতিহার থানা (উত্তর) ছাত্রদলের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলামকে আটক করে। সেখান থেকে রফিকুল ইসলামকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

সুলতান আহমেদ বলেন, ‘আমরা দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত উপাচার্যসহ প্রশাসনের সব কর্মকর্তার অপসারণ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই, যেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এমন সম্মানীয় পদে থেকে কেউ এমন কাজের সাহস না পান। একই সঙ্গে আমরা হত্যার শিকার মোস্তাফিজুর রহমানের পরিবারকে ৩০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণের দাবি জানাই। তাঁর হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে শাস্তি দেওয়া হোক।’

জানতে চাইলে মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিদ্দিকুর রহমান গাড়ি দিয়ে ধাক্কার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘আমরা তাঁদের বাধা দিতে যাইনি। বিএনপি তো প্রোগ্রাম করেই। ওরাই পুলিশ দেখে পালাতে গিয়েছিল। সন্দেহজনক মনে হওয়ায় একজনকে ধরে থানায় আনা হয়েছে। যাচাই-বাছাই করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0