default-image

সময়ের ব্যবধান মাত্র ১৫ ঘণ্টা। একই স্থানে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই মোটরসাইকেল আরোহীসহ তিনজনের প্রাণহানি হয়েছে। শনিবার থেকে আজ রোববার ভোরে কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার বাটিকামারা শিপলু ফিলিং স্টেশনের সামনে কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

মারা যাওয়া তিন যুবক হলেন মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার ফয়জুল খাঁর ছেলে ইনছান (৩০) ও তাঁর সহযোগী রমজান (৩৫) এবং কুমারখালী উপজেলার সদকী ইউনিয়নের বাটিকামারা মধ্যেপাড়া গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে ফিরোজ হোসেন (৩৫)।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, শনিবার বেলা তিনটার দিকে ইনছান ও তাঁর সহযোগী রমজান মোটরসাইকেল নিয়ে কুষ্টিয়ার দিকে যাচ্ছিলেন। বাটিকামারা শিপলু ফিলিং স্টেশনের সামনে মোটরসাইকেলের সঙ্গে ইঞ্জিনচালিত ভ্যানের সংঘর্ষে দুজনই ছিটকে সড়কের ওপর পড়ে যান। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি মোটরসাইকেল ওই দুজনের ওপর দিয়ে চলে যায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে প্রথমে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে সন্ধ্যা সাতটার দিকে দুজনই মারা যান।

বিজ্ঞাপন

রোববার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে একই স্থানে কুষ্টিয়াগামী একটি মাইক্রোবাসের ধাক্কায় পথচারী ফিরোজ হোসেন (৩৫) মারা গেছেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ফিরোজসহ বেশ কয়েকজন কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী সড়কের পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। তাঁরা শিপলু ফিলিং স্টেশনের সামনে পৌঁছালে পেছন থেকে আসা দ্রুতগতির একটি মাইক্রোবাস ফিরোজকে ধাক্কা দিয়ে কুষ্টিয়ার দিকে দ্রুত চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। ফিরোজ কুমারখালী উপজেলার সদকী ইউনিয়নের বাটিকামারা মধ্যেপাড়া গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে।


সড়ক দুর্ঘটনায় একই স্থানে তিনজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান।

মন্তব্য পড়ুন 0