সৌরভ ইসলাম
সৌরভ ইসলামসংগৃহীত

ফুটবল খেলা শেষে বন্ধুদের সঙ্গে গতকাল শনিবার নদীতে গোসল করতে নেমেছিল সৌরভ। হঠাৎ পানিতে তলিয়ে যায় সে। পুরো দিন খুঁজেও তাকে আর পাওয়া যায়নি। ২৪ ঘণ্টার বেশি সময় পর আজ রোববার তার লাশ পাওয়া গেছে। এ ঘটনা ঘটেছে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায়।

বিজ্ঞাপন

সৌরভ ইসলাম (১৭) দেবীগঞ্জ উপজেলা সদরের মিস্ত্রিপাড়া এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে। সে দেবীগঞ্জ সরকারি কলেজের উচ্চমাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষে পড়ত। আজ বিকেলে সুন্দরদিঘী ইউনিয়নে করতোয়া নদীর গোয়াল-বৈরাগী ঘাট এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

ফুটবল খেলা শেষে গত শনিবার বন্ধুদের সঙ্গে নদীতে গোসল করতে নেমেছিল সৌরভ। হঠাৎ পানিতে তলিয়ে যায় সে। এক দিন পর আজ রোববার তার লাশ পাওয়া গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান, গতকাল দুপুরে কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে সোনাপোতা এলাকায় করতোয়া নদীতে গোসল করতে নামে সৌরভ। একপর্যায়ে সে পানিতে তলিয়ে যায়। বন্ধুদের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন গিয়ে তাকে উদ্ধারের চেষ্টা চালান। পাশাপাশি দেবীগঞ্জ থানা ও নীলফামারীর ডোমার ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গিয়েও উদ্ধারের চেষ্টা চালান। নদীতে প্রবল স্রোত থাকায় রংপুর ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলকে খবর দেওয়া হয়। গতকাল সন্ধ্যার পর থেকে আজ বেলা দেড়টা পর্যন্ত সৌরভকে না পেয়ে অভিযান শেষ করেন ডুবুরিরা। পরে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিতু আক্তারসহ স্থানীয় ব্যক্তিরা নৌকা নিয়ে সৌরভকে খুঁজতে থাকেন। বিকেলে গোয়াল-বৈরাগী ঘাট এলাকায় লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয় ব্যক্তিরা। খবর পেয়ে রিতু আক্তারসহ কয়েকজন বেলা তিনটায় গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যান।

বিজ্ঞাপন

দেবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল হাসান সরকার সৌরভের লাশ উদ্ধারের খবর নিশ্চিত করেছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন