default-image

আগামী এপ্রিল মাসের মধ্যে সিলেট থেকে যুক্তরাজ্যের লন্ডনে ও ম্যানচেস্টারে সরাসরি ফ্লাইট চালু হবে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী। তিনি বলেন, সিলেটের ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়ের শক্তি বৃদ্ধির কাজ চলছে। ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে যাতে বোয়িং ৭৮৭, ৭৭৭, ড্রিমলাইনার এ ধরনের বড় বিমান লন্ডন, ম্যানচেস্টারে সরাসরি উড়তে পারে, সে লক্ষ্যেই কাজ চলছে। বাংলাদেশিরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আছেন। প্রবাসীদের সঙ্গে সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করে বেসামরিক বিমান মন্ত্রণালয়।’

আজ বুধবার বিকেলে সিলেট নগরের মির্জাজাঙ্গালের একটি হোটেলের সম্মেলন কক্ষে সিলেট চেম্বার আয়োজিত গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

‘ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর-লন্ডন-ম্যানচেস্টার সরাসরি ফ্লাইট এবং উক্ত ফ্লাইটে পণ্য আমদানি ও রপ্তানি কার্যক্রম সহজতর করার লক্ষ্যে’ এ গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে সিলেট চেম্বার। বৈঠকে সূচনা বক্তব্য দেন সিলেট চেম্বারের সভাপতি আবু তাহের মো. শোয়েব।

বৈঠকে সিলেট সিটির মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোকাব্বির হোসেন, সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব কুমার ভদ্র, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী, সিলেট কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনার গোলাম মো. মনির, সিলেট কর অঞ্চলের কমিশনার রনজীত কুমার সাহা, ওসমানী বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক হাফিজ আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন খান, সিলেট উইমেন্স চেম্বারের সভাপতি স্বর্ণলতা রায় প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সূচনা বক্তব্যে সিলেট চেম্বার সভাপতি বলেন, সিলেট-লন্ডন, সিলেট-ম্যানচেস্টার সরাসরি ফ্লাইট সিলেটবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিল। তা এপ্রিলে শুরু হচ্ছে। সিলেট থেকে লন্ডন ও ম্যানচেস্টারে যে বিমান যাবে, সেটিতে ১৫ টন কার্গো (পণ্য) পরিবহন করা যাবে। সিলেট থেকে কীভাবে যুক্তরাজ্যে পণ্য পরিবহন করা যায়, এ ক্ষেত্রে কী কী বাধা আছে, তা দেখতে হবে। সিলেটের লেবু, আনারস, কাঁঠালসহ বিভিন্ন পণ্য প্রক্রিয়াজাত করে রপ্তানির সুযোগ আছে। এ সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে শিল্পবিপ্লব হতে পারে।

গোলটেবিল বৈঠকে আলোচনায় ঢাকা ও চট্টগ্রামের সঙ্গে মিল রেখে সিলেট থেকে বিভিন্ন রুটে বিমানের ভাড়া সামঞ্জস্য করা, ওসমানী বিমানবন্দরের পাশে পণ্য রাখার অঞ্চল গড়ে তোলা, বিমানবন্দরে যাত্রী ছাউনি নির্মাণ, সিলেটের পর্যটন স্পটগুলোতে পর্যটকদের জন্য সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা, নিরাপত্তা জোরদারসহ বিমানবন্দর ও পর্যটনকেন্দ্রীক বিভিন্ন প্রস্তাব ওঠে আসে।

আগামী এক বছরের মধ্যে ঢাকা-নিউইয়র্ক ফ্লাইট চালু হবে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আগের সরকার নিউইয়র্ক ফ্লাইট বন্ধ করে দেয়। এক বছর আগে আমরা এ রুট চালু করার উদ্যোগ নেই। আবার আলাপ-আলোচনা শুরু করেছি। খুব বেশি দিন লাগবে না, বিমান যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক ও টরন্টোতে ফ্লাইট চালু করবে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0