default-image

এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন ১২ জন। আজ মঙ্গলবার বেলা একটার দিকে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নড়াগাতি থানার কলাবাড়িয়া ইউনিয়নের মূলখানা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
সংঘর্ষে নিহত যুবকের নাম রানা ফকির (২৫)। তিনি নড়াগাতি থানার কলাবাড়িয়া ইউনিয়নের মূলখানা গ্রামের ফায়েক ফকিরের ছেলে। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মূলখানা গ্রামের সবর ফকির ও মান্নান শিকদার পক্ষের মধ্যে দ্বন্দ্ব-সংঘাত লেগে আছে। আজ দুপুর ১২টার দিকে সবর ফকিরের পক্ষের নবম শ্রেণির এক ছাত্র বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে মান্নান শিকদার পক্ষের কয়েকজন তরুণ তাকে বাধা দেয়। এ নিয়ে দুই পক্ষের তর্ক হয়। একপর্যায়ে দুই পক্ষের লোকজন ঢাল-সড়কি ও অন্যান্য দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হন। এ সময় রানা ফকির ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হন। স্থানীয় ব্যক্তিরা তাঁকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত রানা সবর ফকিরের পক্ষের লোক।

এ বিষয়ে নড়াগাতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রোকসানা খাতুন বলেন, ওই এলাকায় দুই পক্ষের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ আছে। এর জেরে তুচ্ছ ঘটনায় এ ধরনের সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ টহল দিচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

মন্তব্য পড়ুন 0