বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রবিউল ইসলাম বলেন, চলতি বছর অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয় গতকাল দুপুর ১২টার দিকে। এতে সুইটি খাতুন অন্যান্য বিষয়ে পাস করলেও গণিত বিষয়ে অকৃতকার্য হয়। পরীক্ষায় ফেল করায় ক্ষোভ ও দুঃখ সইতে না পেয়ে সে তার নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে মারা গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম বলেন, মেয়েটি লেখাপড়ায় অনেক ভালো ছিল। কিন্তু এক বিষয়ে সে অকৃতকার্য হয়েছে। এই আঘাত সে সহ্য করতে পারেনি। ঘটনাটি হৃদয়বিদারক।

রাজশাহীর কাটাখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ছিদ্দিকুর রহমান বলেন, মেয়েটির মা তাঁদের থানায় রান্নার কাজ করেন। ঘটনার আগে তিনি জানতেন না যে তাঁর এক মেয়ে আছে এবং সে লেখাপড়া করে। এ ঘটনায় পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন