default-image

গাজীপুরের শ্রীপুরে পূর্বশত্রুতার জেরে শাহিন মিয়া (১৬) নামের এক কিশোরকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ওয়াজ মাহফিল থেকে ফেরার পথে গতকাল সোমবার রাতে উপজেলার হালুকাইদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহিন মিয়া সদর উপজেলার দলিপাড়া গ্রামের সোহাগ মিয়ার ছেলে। শাহিন পাবরিয়াচালা উচ্চবিদ্যালয়ের ছাত্র ছিল। এ ঘটনায় আহত মো. মোকাররম (২১) নামের এক তরুণকে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শাহিন মিয়ার নানা হায়দার আলী বলেন, শাহিন সোমবার রাতে বন্ধুদের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী গ্রাম হালুকাইদের একটি মসজিদে ওয়াজ মাহফিলে যায়। সেখান থেকে রাত ১০টার দিকে বাসায় ফেরার পথে তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়। এ সময় শাহিনের সঙ্গে থাকা মোকাররমও আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় শাহিনকে প্রথমে শ্রীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হায়দার আলী অভিযোগ করেন, পূর্বশত্রুতার জেরে স্থানীয় শামসুল হকের ছেলে সজীব (২১) ও তাঁর সহযোগীরা শাহিনকে হত্যা করেছেন।

বিজ্ঞাপন

শ্রীপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) গোলাম সারোয়ার বলেন, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, তিন মাস আগে মাছ ধরা নিয়ে আনিসুর রহমানের সঙ্গে শাহিনের ঝগড়া হয়। বিষয়টি নিয়ে সালিস হয়েছিল। সেখানে শাহিনকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। জরিমানার টাকা শাহিনের খালু পরিশোধ করেন। তবে এতে আনিসুর সন্তুষ্ট ছিলেন না। শাহিনকে মারার সুযোগ খোঁজেন তিনি। সোমবার রাতে শাহিনের ওপর হামলা করেন আনিস ও তাঁর বন্ধু সজীব।

গোলাম সারোয়ার আরও বলেন, লাশের সুরতহালে দেখা গেছে, শাহিনের বুকে ও পিঠে আঘাতের চিহ্ন আছে।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খন্দকার ইমাম হোসেন দুপুরে বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। আহত ব্যক্তির চিকিৎসাও সেখানেই চলছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন