default-image

কক্সবাজার শহরের বাঁকখালী নদীতে মিলল মেশিনগান, থ্রিনটথ্রি ও পিস্তলের ২ হাজার ১৯০টি গুলি। গুলিগুলো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ের বলে দাবি করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। গুলিগুলো এখন কক্সবাজার সদর মডেল থানার হেফাজতে রাখা হয়েছে।

কক্সবাজার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উন্নয়ন এবং মাটি ভরাটের জন্য পাশের বাঁকখালী নদীতে খননকাজ চলছিল। নদীর তলদেশ থেকে উত্তোলন করা বালু নেওয়া হচ্ছিল বিমানবন্দর এলাকায়। গতকাল রোববার রাতে বিমানবন্দরের বালুর স্তূপে গুলিগুলো দেখতে পান কর্মরত শ্রমিকেরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর সদস্যরা। রাত ১২টার দিকে গুলিগুলো কক্সবাজার সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়।

এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মুনীর উল গীয়াস আজ সোমবার বিকেলে প্রথম আলোকে বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, গুলিগুলো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ের। বাঁকখালী নদীতে খননের সময় বালুর সঙ্গে গুলিগুলোও বিমানবন্দর এলাকায় চলে যায়। সেখান থেকে বিমানবাহিনী গুলিগুলো উদ্ধার করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

পুলিশ জানায়, উদ্ধার ২ হাজার ১৯০টি গুলির মধ্যে ভারী অস্ত্র মেশিনগান ও থ্রিনটথ্রির গুলি বেশি। কিছু গুলি পিস্তলের। গুলির মধ্যে কিছু সচল ও কিছু নষ্ট বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে পরীক্ষা–নিরীক্ষার পর এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন থানার ওসি। গুলিগুলো থানায় সংরক্ষণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন