default-image

এবার কক্সবাজার জেলা পুলিশের ১ হাজার ১৪১ জন কনস্টেবলকে বদলি করা হয়েছে। এর আগে তিন দফায় জেলার পুলিশ সুপার (এসপি), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সহকারী পুলিশ সুপার, পরিদর্শকসহ ২৭২ জন পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে।

গত ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর তল্লাশিচৌকিতে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদ খান। এ ঘটনার পর পুলিশের কর্মকাণ্ড নিয়ে বিভিন্ন মহলে সমালোচনা-প্রতিক্রিয়া শুরু হয়। জেলা পুলিশকে ঢেলে সাজাতে একযোগে সব সদস্যকে বদলির সিদ্ধান্ত নেয় পুলিশের সদর দপ্তর। ইতিমধ্যে ১ হাজার ৪১৩ জন সদস্যকে অন্যত্র বদলি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন আজ শুক্রবার দুপুরে প্রথম আলোকে বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার সদর দপ্তরের এক প্রজ্ঞাপনে জেলা পুলিশের ১ হাজার ১৪১ জন কনস্টেবলকে বদলি করা হয়েছে। তাঁরা বর্তমানে জেলার আটটি থানা, একাধিক পুলিশ ফাঁড়ি, আদালত, জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি), ট্রাফিক বিভাগে কর্মরত। এর আগে পুলিশ সুপার থেকে শুরু করে এএসআই পর্যন্ত পদবির আরও ২৭২ জন পুলিশ কর্মকর্তাকে অন্যত্র বদলি করা হয়েছে। দেশের ইতিহাসে জেলা পর্যায়ে এত বড় বদলির ঘটনা তাঁর জানা নেই।

বিজ্ঞাপন

গত ১৭ জুলাই সদর দপ্তরের নির্দেশে পুলিশ সুপার এ বি এম মাসুদ হোসেনকে রাজশাহীতে বদলি করা হয়। গতকাল তিনি রাজশাহীর উদ্দেশে কক্সবাজার ছাড়েন। কক্সবাজারে তাঁর স্থলাভিষিক্ত হন ঝিনাইদহের এসপি মো. হাসানুজ্জামান।

২১ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় দফায় পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমদ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বদলি করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও সহকারী পুলিশ সুপার পদমর্যাদার আরও সাতজন কর্মকর্তাকে। পরের দিন আরেক প্রজ্ঞাপনে বদলি করা হয় ২৬৪ জন পুলিশ কর্মকর্তাকে। এর মধ্যে ৩৪ জন পুলিশ পরিদর্শক, ২৩০ জন এসআই ও এএসআই।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে পুলিশ সদর দপ্তরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রফিকুল ইসলামকে কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মামুন আল ইসলামকে কক্সবাজার সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, চট্টগ্রামের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার পংকজ বড়ুয়াকে কক্সবাজার সদরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার মো. জাহেদুল ইসলামকে মহেশখালী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার, চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার কাজী শাহবুদ্দিন আহমেদকে কক্সবাজারের সহকারী পুলিশ সুপার ট্রাফিক, র‍্যাবের সহকারী পুলিশ সুপার মো. তফিকুল ইসলামকে চকরিয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার এবং খাগড়াছড়ির সহকারী পুলিশ সুপার খন্দকার গোলাম শাহনেওয়াজকে ডিএসবি কক্সবাজারের সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য পড়ুন 0