default-image

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলায় গুলিতে এক নারী নিহত হয়েছেন। রোববার দিবাগত রাতে সোয়া একটার দিকে উপজেলার বুধামাঝির ঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে অপর দুজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ দুজনকে আটক করেছে।

নিহত ওই নারীর নাম সেলিনা আকতার (৪৫)। তিনি বুধামাঝির ঘোনা এলাকার ফরিদুল আলমের স্ত্রী। গুলিবিদ্ধ দুই যুবক হলেন নাজমুস সাকিব (২৭) ও সাইফুল ইসলাম (৩২)। তাঁরা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সাকিবের পেটে আর সাইফুলের বুকে গুলি লেগেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জমি নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দা নুরুল ইসলাম ও মাহমুদুল করিমের বিরোধ চলে আসছিল। গতকাল রোববার রাতে মাহমুদুল করিমের পক্ষের লোকজন ওই জমিতে ঘর তুলতে গেলে নুরুল ইসলামের পক্ষের লোকজনের সঙ্গে বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। এ সময় মাহমুদুল করিমের পক্ষের লোকজন এলোপাতাড়ি গুলি ও ঢিল ছোড়েন। পাশে ফরিদুল আলমের বসতঘরে ঢিল পড়লে তাঁরা ঘর থেকে বের হয়ে প্রতিবাদ করেন। এতে তাঁরা ক্ষুব্ধ হয়ে আবারও গুলি ছোড়েন। সেই গুলিতে সেলিনা আকতার, সাইফুল ইসলাম ও নাজমুস সাকিব গুলিবিদ্ধ হন। তাঁদের হাসপাতালে নেওয়ার পথে সেলিনা আকতার মারা যান। নিহত ওই নারী ও গুলিবিদ্ধ দুজন কারও পক্ষের নন।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম মজুমদার বলেন, এ ঘটনায় মাহমুদুল করিম ও তাঁর ভাই মো. মফিজকে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অন্যদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে। নিহত নারীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন