default-image

কক্সবাজারে ১০ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় আনোয়ার হোসেন (২৬) নামের এক তরুণকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাঁকে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে। এ অর্থ অনাদায়ে আরও এক বছর সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। কক্সবাজার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২-এর বিচারক জেবুন্নাহার আয়েশা আজ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন।

দণ্ডিত আনোয়ার হোসেন রামুর উপজেলার রশিদনগর ইউনিয়নের পানিরছড়া গ্রামের মনজুর আলমের ছেলে।

বিজ্ঞাপন

রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি এপিপি সৈয়দ রেজাউর রহমান বলেন, ২০১৭ সালের ১৯ অক্টোবর দোকান থেকে চাল নিয়ে বাড়ি ফিরছিল ১০ বছর বয়সী ভুক্তভোগী মেয়েশিশুটি। পথে কালভার্টের পাশে খালের পাড়ে আটকে তাকে ধর্ষণ করেন আনোয়ার হোসেন। ঘটনার সময় শিশুটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন জড়ো হয়ে তাঁকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। এ ঘটনায় আনোয়ার হোসেনকে আসামি করে রামু থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগী শিশুটির বাবা।

আজ মামলার রায় ঘোষণার সময় আসামি কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। আসামিপক্ষে কোনো আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন না।

আজ মামলার রায় ঘোষণার সময় আসামি কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। আসামিপক্ষে কোনো আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন না। যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ শোনার পর কান্নায় ভেঙে পড়েন আসামি আনোয়ার।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন–২০০০-এর ৯ (১) ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে আসামি আনোয়ারকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। একই সঙ্গে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। এ অর্থ অনাদায়ে আরও এক বছর সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন