কটিয়াদীতে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা

বিজ্ঞাপন
default-image

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে সিদ্দিকুর রহমান (৬০) নামের সাবেক এক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বুধবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের চরনোয়াকান্দা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।


সিদ্দিকুরের বাড়ি কটিয়াদী উপজেলার নোয়াকান্দা গ্রামে। তিনি জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিহত ব্যক্তির পরিবারের সদস্য ও পুলিশ জানায়, সাবেক ইউপি সদস্য সিদ্দিকুর রহমানের সঙ্গে নোয়াকান্দা গ্রামের আবুল কালামের এক বছর ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বেশ কয়েকবার কথা–কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়।

পুলিশ আরও জানায়, বুধবার রাত ৯টার দিকে নোয়াকান্দা এলাকার একটি চায়ের দোকানে বসে চা পান করেন সিদ্দিকুর। রাত ১০টার দিকে তিনি হেঁটে সেখান থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে একদল দুর্বৃত্ত দা ও বল্লম নিয়ে তাঁর ওপর হামলা চালায়। পরে স্থানীয় ব্যক্তিরা তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে বাজিতপুরে অবস্থিত জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। সেখানে সিদ্দিকুরের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ রাত সাড়ে ১১টার দিকে জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এসে তাঁর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
সিদ্দিকুর এলাকায় নিরিবিলি মানুষ হিসেবে পরিচিত। সম্প্রতি জমির মালিকানা নিয়ে সিদ্দিকুরের সঙ্গে আবুল কালাম ও তাঁর পক্ষের লোকজনের বিরোধ চলছিল। আমাদের ধারণা, হত্যার সঙ্গে ওই বিরোধের যোগসূত্র থাকতে পারে।
জালালপুর ইউপির ১ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য সিদ্দিকুরের এক আত্মীয়

এ বিষয়ে সাবেক ইউপি সদস্য সিদ্দিকুরের এক আত্মীয় বলেন, ‘সিদ্দিকুর এলাকায় নিরিবিলি মানুষ হিসেবে পরিচিত। সম্প্রতি জমির মালিকানা নিয়ে সিদ্দিকুরের সঙ্গে আবুল কালাম ও তাঁর পক্ষের লোকজনের বিরোধ চলছিল। আমাদের ধারণা, হত্যার সঙ্গে ওই বিরোধের যোগসূত্র থাকতে পারে।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এই অভিযোগের বিষয়ে কথা বলার জন্য আবুল কালামের মুঠোফোনে ফোন করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। তবে এ বিষয়ে আবুল কালামের স্বজনেরা বলেন, জমির স্বত্ব নিয়ে দুই পক্ষের বিরোধ ও উত্তেজনা ছিল সত্য, তবে হত্যার সঙ্গে এই ঘটনার কোনো যোগসূত্র থাকতে পারে না।


কটিয়াদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ জলিল জানালেন, সিদ্দিকুরকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি। ময়নাতদন্তের জন্য তাঁর লাশ আজ বৃহস্পতিবার সকালে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন