default-image

পাবনার ঈশ্বরদীতে দাফনের দুই সপ্তাহ পর কবর থেকে এক বৃদ্ধার মৃতদেহ তুলে মাথা কেটে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সকালে কবরস্থান কর্তৃপক্ষ বিষয়টি টের পায়। এতে স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় লোকজন ও ওই বৃদ্ধার স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত ৩১ অক্টোবর ফজিলা খাতুন (৮৫) নামের ওই বৃদ্ধা মারা যান। সেদিনই তাঁকে দাফন করা হয়। এর ১২ দিনের মাথায় বুধবার রাতের কোনো একসময় দুর্বৃত্তরা কবর থেকেই তাঁর মৃতদেহ তুলে মাথা কেটে নিয়ে যায়। সকালে কবরস্থান কর্তৃপক্ষ বিষয়টি দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও মৃতদেহটি পুনরায় দাফনের ব্যবস্থা করে।

কবরস্থান পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ জানান, একই দিনে পাশাপাশি দুইটি মৃতদেহ দাফন করা হয়েছিল। তার মধ্যে একটি মৃতদেহ তুলে মাথা কেটে নেওয়া হয়েছে। এ ধরনের ঘটনা এলাকায় প্রথম ঘটল। তবে কারা কী কারণে এই ঘটনা ঘটিয়েছে, তা কেউ বুঝতে পারছে না।

বিজ্ঞাপন

সলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবদুল মজিদ মালিথা বলেন, ‘এমন ঘটনার খবর আগে কখনো শুনিনি। বিষয়টি আমাদের আতঙ্কিত করেছে। যারাই ঘটনাটি ঘটাক, তাদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।’

এ প্রসঙ্গে পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ঈশ্বরদী সার্কেল) মো. ফিরোজ কবির বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের সহযোগিতায় মৃতদেহটি দাফনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। ঘটনাটির সঙ্গে যারা জড়িত তাদের খুঁজে বের করতে তদন্ত চলছে।

মন্তব্য পড়ুন 0