default-image

নোয়াখালীর কবিরহাট পৌরসভা নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী জহিরুল হক (রায়হান)। গতকাল শুক্রবার মনোনয়নপত্র বাছাইকালে অপর প্রার্থী ইসলামী আন্দোলনের মো. আলাউদ্দিনের মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় এই সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। আগামী ১১ এপ্রিল এই পৌরসভার নির্বাচন হওয়ার কথা।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাজিয়া পারভীন প্রথম আলোকে বলেন, কবিরহাট পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে দুজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এর মধ্যে একজন আওয়ামী লীগের বর্তমান মেয়র জহিরুল হক, অন্যজন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আলাউদ্দিন। গতকাল মনোনয়নপত্র বাছাইকালে আয়কর রিটার্ন দাখিলের কাগজপত্র না থাকায় আলাউদ্দিনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায়।

ইউএনও সাজিয়া পারভীন বলেন, বাছাইয়ে মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রার্থী আলাউদ্দিন তিন দিনের মধ্যে জেলা প্রশাসকের কাছে আপিল করতে পারবেন। সেখানে যদি তাঁর আপিল মঞ্জুর হয়, তাহলে তিনি প্রার্থী থাকবেন। আর না হলে তাঁর মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে। সে ক্ষেত্রে জহিরুল হক বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হবেন।

বিজ্ঞাপন

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনে সাধারণ সদস্যের নয়টি পদে ৩১ জন প্রার্থী এবং সংরক্ষিত নারী আসনের তিনটি পদে সাতজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বাছাইয়ে তাঁদের সবার মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

কবিরহাট পৌরসভার বর্তমান মেয়র জহিরুল হক নোয়াখালী-৪ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ এমরামুল করিম চৌধুরীর ভাগনে। তাঁর মামি কামরুন নাহার শিউলী কবিরহাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান।

২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর জহিরুল হক প্রথমবারের মতো মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন পান। এর পরের নির্বাচনেও তিনি দলের মনোনয়ন পেয়ে দ্বিতীয়বারের মতো মেয়র হন। আর এবার তৃতীয়বারের মতো দলীয় মনোনয়ন পেয়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার পথে আছেন তিনি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন