default-image

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় কথিত কবিরাজের কাছে এসে এক তরুণী (২৮) ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় করা মামলায় গতকাল রোববার রাতে ওই কথিত কবিরাজকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার ওই ব্যক্তির নাম মকবুল হোসেন (৫৫)। তাঁর বাড়ি নান্দাইল উপজেলার কানুরামপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায়।

মামলা ও পুলিশ সূত্র জানায়, পাঁচ বছর আগে ওই তরুণীর প্রথম স্বামী মারা যান। পরে তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করেন। দ্বিতীয় স্বামীর সঙ্গে তাঁর দাম্পত্য সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিল না। বিষয়টি নিয়ে তিনি তাঁর এক বান্ধবীর সঙ্গে কথা বলেন। সেই বান্ধবী তাঁকে স্বামীর সঙ্গে ভালো সম্পর্ক স্থাপনের জন্য কবিরাজ মকবুল হোসেনের সন্ধান দেন। পরে তিনি ওই কবিরাজের কাছে গিয়ে ফাঁদে পড়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

ওই তরুণীর ভাষ্য, গত বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে কবিরাজ মকবুল হোসেন তাঁকে ধর্ষণ করার পর তন্ত্রমন্ত্রের ভয় দেখিয়ে তাঁকে তাঁর ডেরায় আটকে রাখেন। পরে স্থানীয় এক ব্যক্তির সহায়তায় তিনি নান্দাইল সদরে আসেন।

নান্দাইল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান আকন্দ বলেন, ওই তরুণী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তাঁকে আজ সোমবার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আর অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য পড়ুন 0