বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আবিদের বড় ভাই আবদুল্লাহ আল আরাফাত বলেন, তাঁর ছোট ভাই শখ করে বাড়ির ছাদে কবুতর পুষত। শুক্রবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে একটি কবুতর ধরতে গিয়ে পা পিছলে ছাদ থেকে পড়ে গুরুতর আহত হয় আবিদ। তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনার সময় আবিদের বাবা হেমায়েত হোসেন ইউনিয়ন পরিষদের সচিবদের একটি অনুষ্ঠানে কুয়াকাটায় অবস্থান করছিলেন। ছেলের মৃত্যুর খবর পেয়ে রাত আড়াইটার দিকে তিনি ঝালকাঠিতে ফেরেন।

ঝালকাঠি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খলিলুর রহমান বলেন, আবিদের লাশ ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের মর্গে আছে। স্বজনেরা ময়নাতদন্ত ছাড়া লাশ দাফনের জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়েছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন