বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গোলাম ফারুক বলেন, তাঁরা লক্ষ করেছেন, ১২ সেপ্টেম্বর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার পর সেখানে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে। তবে ডেঙ্গু প্রতিরোধে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে সবাই মনোযোগী ছিলেন না। সেটি নিশ্চিত করার জন্য কর্মকর্তারা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ঘুরে ঘুরে পর্যবেক্ষণ করছেন। শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিয়মিত তাপমাত্রা মাপা, হাত ধোয়া, মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ব ঠিক রাখার পাশাপাশি সবাই পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবে; এটাই তাঁদের চাওয়া।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিদর্শনকালে তাঁর সঙ্গে ছিলেন মাউশির পরিচালক (মনিটরিং অ্যান্ড ইভল্যুয়েশন) আমির হোসেন, পরিচালক (অর্থ ও ক্রয়) সিরাজুল ইসলাম খান, উপপরিচালক (ঢাকা অঞ্চল) মনোয়ার হোসেন, নরসিংদীর জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা গৌতম চন্দ্র মিত্র প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন