করোনার উপসর্গ, একাই বগি নিয়ে ঢাকায় গেলেন রেল কর্মকর্তা

বিজ্ঞাপন
default-image

কোভিড-‍১৯ রোগের উপসর্গ দেখা দেওয়ায় বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের এক কর্মকর্তাকে সোমবার ঢাকায় নেওয়া হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকা রুটে চলাচলকারী বিরতিহীন ‘বনলতা এক্সপ্রেস’ ট্রেনে আলাদা একটি বগি যুক্ত করে তাঁকে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, এটা কোয়ারেন্টিন কোচ।

ওই কর্মকর্তার নাম সাহিদুল ইসলাম। তিনি পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের চিফ পার্সোনেল অফিসার। সোমবার তাঁকে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন থেকে ঢাকায় নেওয়া হয়। অতিরিক্ত একটি বগিতে তিনি একাই ঢাকায় যান।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, দুই সপ্তাহ ধরে জ্বরে ভুগছেন সাহিদুল ইসলাম। কোনোভাবেই জ্বর কমছে না। তিন দিন থেকে কাশি শুরু হয়েছে। দেখা দিয়েছে শ্বাসকষ্টও। তাই তাঁকে রাজশাহীর ‘করোনা ডেডিকেটেড’ খ্রীষ্টিয়ান মিশন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশনা অনুযায়ী তাঁকে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে। ঢাকার মহাখালীতে বেসরকারি ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাঁকে।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহ বলেন, ‘সাহিদুল ইসলামের করোনার উপসর্গ রয়েছে। তাই আমাদের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বললেন, তাঁকে ঢাকায় নিতে হবে। সে জন্য বনলতা এক্সপ্রেসে তাঁর জন্য আলাদা একটি বগি যুক্ত করে তাঁকে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে।’ তিনি বলেন, এটা কোয়ারেন্টিন কোচ। করোনা রোগীদের জন্য এই কোচের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ঢাকায় পৌঁছার পর তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। খোঁজ নিয়ে তিনি (মিহির কান্তি) জেনেছেন, তিনি (সাহিদুল ইসলাম) সেখানে ভালো আছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন