বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ সকালে তাঁরা দুজন মোটরসাইকেলে করে করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিতে নরসিংদীর ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা সদর হাসপাতালে গিয়েছিলেন। টিকা নেওয়া শেষে মোটরসাইকেলে করে দুজন বাড়িতে ফিরছিলেন।

হাইওয়ে পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, সকাল ১০টার দিকে কারারচর এলাকার সুলতানা ফিলিং স্টেশনের সামনে পৌঁছানোর পর পেছন থেকে একটি ট্রাক মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এতে স্বামী-স্ত্রী দুজনই মহাসড়কে ছিটকে পড়েন। ট্রাকটি তাঁদের চাপা দিলে এর চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে শাহিদা ইসলামের মৃত্যু হয়। গুরুতর আহত হন মনিরুল ইসলাম। স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে নরসিংদীর ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানকার জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক শাহিদাকে মৃত ঘোষণা করেন। বর্তমানে মনিরুল ইসলাম ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) এ এন এম মিজানুর রহমান জানান, ‘মৃত অবস্থায় ওই নারীর লাশ আমাদের হাসপাতালে আনা হয়েছিল। তাঁর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। অন্যদিকে আহত মনিরুলকে আমাদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।’

ইটখোলা হাইওয়ে ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নূর হায়দার তালুকদার বলেন, ‘বেপরোয়া গতিতে ট্রাকটি পেছন থেকে মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দিলে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ট্রাকটি জব্দ করেছি। চালক পালিয়ে গেছেন। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন