default-image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন সাবেক অতিরিক্ত সচিব মুক্তিযোদ্ধা ওয়াজেদ আলী খান। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার দুপুরে তিনি মারা যান।
ওয়াজেদ আলী খানের বাড়ি মির্জাপুর উপজেলার ভাওড়া ইউনিয়নের ভাওড়া গ্রামের সরকারপাড়ায়।

তিনি বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক ও টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ভাওড়া স্কুল অ্যান্ড কলেজের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তিনি পাঁচ ভাই ও চার বোনের মধ্যে তৃতীয়।

বিজ্ঞাপন

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ওয়াজেদ আলী খান নানা জটিল রোগে ভুগছিলেন। প্রায় এক সপ্তাহ আগে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁর নমুনা পরীক্ষার পর করোনা পজিটিভ আসে। সোমবার এশার নামাজের পর ভাওড়া স্কুল অ্যান্ড কলেজমাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁর মরদেহ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয়।

ওয়াজেদ আলীর মৃত্যুতে টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাবেক জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান, স্থানীয় সাংসদ মো. একাব্বর হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল মালেক ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার দুর্লভ বিশ্বাস শোক প্রকাশ করেছেন।

মন্তব্য পড়ুন 0