বিজ্ঞাপন

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শেনারুল মণ্ডল দুপুরের খাবার খেয়ে বাড়ি থেকে তাঁর ইজিবাইক নিয়ে বের হন। পরে রাত সাড়ে নয়টার দিকে নেত্রকোনা-কলমাকান্দা সড়কের আশা রানী সেতু এলাকায় স্থানীয় লোকজন তাঁর রক্তাক্ত দেহ পড়ে থাকতে দেখে বাড়িতে খবর দেন। আশা রানী সেতু এলাকা থেকে তাঁর বাড়ির দূরত্ব দেড় কিলোমিটারের মতো। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে কলমাকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

রাতেই জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ফকরুজ্জামান জুয়েল, কলমাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবদুল আহাদ খানসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ওসি বলেন, শেনারুলের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পূর্বশত্রুতার জেরে অথবা ইজিবাইকটি ছিনিয়ে নিতে দুর্বৃত্তরা শেনারুলকে খুন করে থাকতে পারে। এ নিয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন