default-image

ঢাকার ধামরাইয়ে বিকাশ ইসলাম নামের এক কলেজছাত্র গতকাল রোববার রাতে সেতু থেকে নদীতে লাফ দেয়। পরে আজ সোমবার সকালে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা বংশী নদী থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছেন।

বিকাশ ইসলাম (১৭) সাভারের রেডিও কলোনির আমানুল্লাহ আমানের ছেলে। সে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ অ্যান্ড স্কুলের উচ্চমাধ্যমিক প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিল।

নদীতে লাফ দেওয়ার আগে বিকাশ তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘কৃতজ্ঞতা জানাই আমার পরিবার, আত্মীয়স্বজন, বন্ধু ও আমার প্রিয় মানুষটাকে। কারও প্রতি আমার ক্ষোভ বা অভিমান নেই। যা করছি, বাস্তবতার সাথে তাল না মেলাতে পারার জন্যই করছি। আমি হেরে গেছি, আমি ব্যর্থ। অনেক ইচ্ছা ছিল, নিজে কিছু করে বাবা ও মায়ের সেবা করব। কিন্তু বাস্তবতা আসলেই কঠিন, যা অনেকে মেনে নিতে পারে, আবার অনেকে পারে না। আমি না পারার দলেই পড়লাম। মা পারলে আমাকে মাফ করে দিয়ো।’

বিজ্ঞাপন

পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও এলাকার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গতকাল রাত আটটার দিকে বিকাশকে সাভার নামাবাজার–সংলগ্ন ধামরাইয়ের ফোর্ডনগর সেতুর রেলিংয়ের ওপর বসে থাকতে দেখা যায়। সেখান থেকে সে বংশী নদীতে লাফিয়ে পড়ে ডুবে যায়। সে সাঁতার জানত না। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করে। রাত ১০টা পর্যন্ত চেষ্টা করে লাশ না পেয়ে উদ্ধার অভিযান স্থগিত করা হয়। অভিযান চালিয়ে আজ সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ডুবুরিরা সেতুর নিচ থেকে তার লাশ উদ্ধার করেন।

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন