বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গুরুতর আহত মাওদুদ খান, মামুন মোড়ল ও মিন্টু তালুকদারকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেকেন্দার খান ও সুমন খানকে ভর্তি করা হয়েছে পিরোজপুরের সদর হাসপাতালে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় লোকজন সূত্রে জানা গেছে, শনিবার রাতে জেপির চেয়ারম্যান প্রার্থী বজলুর রহমান তাঁর নির্বাচনী প্রচারণা শেষে বাড়িতে ফিরছিলেন। রাত আটটার দিকে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর চিরাপাড়া টেম্পোস্ট্যান্ড নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় প্রার্থীর লোকজন বজলুর রহমানকে দেখে হইচই শুরু করেন। এরপর আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহামুদ খানের বড় ভাই মাওদুদ খান ও জেপির বজলুর রহমানের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাহামুদ খান বলেন, শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে দলীয় কার্যালয়ে বসে কর্মীদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। এর কিছুক্ষণ পর জেপি প্রার্থী ও নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীরা মিলে পরিকল্পিতভাবে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। এ সময় তাঁর কর্মীরা বাধা দিলে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়।

জেপির প্রার্থী বজলুর রহমান বলেন, তাঁর কয়েকজন কর্মী কাউখালী উপজেলা সদর থেকে ফিরছিলেন। এ সময় চিরাপাড়া টেম্পোস্ট্যান্ডের কাছে পৌঁছালে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও তাঁর কর্মীরা হামলা চালায়। তাঁকেও লাঞ্ছিত করা হয়।

২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপে চিরাপাড়ার পারসাতুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন