বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকালের দিকে বক্কার প্রামাণিক বাড়ি থেকে কাগেশ্বরী নদী পার হয়ে ওপারে ঘাস কাটতে যান। দুপুরে তিনি বাড়িতে না ফিরলে পরিবারের লোকজন তাঁকে নদীর ওপারে খুঁজতে যান। সুলতানা খাতুন (৩০) নামের এক গৃহবধূ জানিয়েছেন, বেলা একটার দিকে নদীতে পানি আনতে গিয়ে তিনি দেখেন, বক্কার প্রামাণিক নদী সাঁতরে বাড়িতে ফিরছেন। তখন নদীতে তীব্র স্রোত ছিল। বক্কার প্রামাণিককে নদীর মাঝবরাবর পর্যন্ত আসতে দেখার পর ওই গৃহবধূ পানি নিয়ে বাড়িতে ফিরে যান। পরে নদীর ওপারে তাঁর স্যান্ডেল ও কাটা ঘাসের সন্ধান পাওয়া যায়।
খবর পেয়ে গতকাল পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলের আশপাশে অভিযান চালান। তবে রাত আটটা পর্যন্ত বক্কার প্রামাণিকের সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরে রাজশাহীর ডুবুরি দলকে খবর দেওয়া হয়।

আজ সকালে রাজশাহীর ডুবুরি দল কাগেশ্বরী নদীতে অভিযান চালায়। নিখোঁজ হওয়ার স্থান থেকে প্রায় ১৫০ মিটার দূরে নদীতে বক্কার প্রামাণিকের লাশ পাওয়া যায়।

বেড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অরবিন্দ সরকার বলেন, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরি দলের সদস্যদের কয়েক ঘণ্টার যৌথ তল্লাশির পর নিখোঁজ বৃদ্ধের লাশ পাওয়া গেছে। পরিবারের কাছে লাশটি হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন