বিজ্ঞাপন

নিহত মাইক্রোবাসচালকের নাম হাসান মিয়া (২৮)। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার সাংনুরপুর গ্রামের বাসিন্দা। নিহত অপর দুজন হলেন একই উপজেলার তুলাবাড়ি গ্রামের সালাম মিয়ার ছেলে ইমন মিয়া (২৫) ও জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার পিয়ারি গ্রামের গোলাম মওলা শামীম (২৮)। শামীমের স্ত্রী মীম আক্তার (২৫) গুরুতর আহত হয়েছেন।

মির্জাপুরের গোড়াই হাইওয়ে থানা-পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নিহত শামীম ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চাকরি করতেন। তিনি ঈদের ছুটি শেষে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মাইক্রোবাসযোগে কর্মস্থলে ফিরছিলেন। সেটি আজ ভোররাতে মির্জাপুরের জামুর্কী ইউনিয়নের পাকুল্যা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছালে দুর্ঘটনার শিকার হয়। ওই স্থানে গতকাল মঙ্গলবার গভীর রাতে ঢাকাগামী একটি কাভার্ড ভ্যান বিকল হয়ে পড়ে। সড়কের ওপরেই কাভার্ড ভ্যানটি থেমে ছিল। মাইক্রোবাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কাভার্ড ভ্যানের পেছনে ধাক্কা দেয়। এতে মাইক্রোবাসটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই নিহত হন হাসান, ইমন ও শামীম। শামীমের স্ত্রী মীমকে গুরুতর আহত অবস্থায় মির্জাপুরের কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন আজ সকালে বলেন, লাশগুলো বর্তমানে পুলিশের হেফাজতে আছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। দুর্ঘটনাকবলিত মাইক্রোবাস ও কাভার্ড ভ্যান জব্দ করেছে পুলিশ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন