বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, দুদিন আগে ঈদের ছুটিতে কালকিনিতে নিজের বাড়িতে আসেন হাবিবুর রহমান। গতকাল শুক্রবার বিকেলে পাশের গ্রামে এনায়েতনগরে নানাবাড়ির উদ্দেশে বের হন তিনি। রাতে একাধিকবার তাঁর ব্যবহৃত মুঠোফোনে কল দিলে সেটি বন্ধ পান পরিবারের লোকজন। আজ সকালে এনায়েতনগরের পাটখেতে হাবিবুরের রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন এলাকাবাসী। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইশতিয়াক আসফাক রাসেল প্রথম আলোকে এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, নিহত তরুণের মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। কান থেকে রক্ত পড়ছিল। লাশটি সুরতাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে কী কারণে এই হত্যাকাণ্ড, সে সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। পরিবার থেকে অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন