বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এর আগেও মো. আবদুল কুদ্দুস ফকির দুবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এবার তিনি টানা তৃতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। তিনি কালাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিনফুজুর রহমান মিলনের চাচা।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, তৃতীয় ধাপে কালাই উপজেলার পাঁচটি ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পুনট ইউনিয়নে আবদুল কুদ্দুস ফকির ছাড়া অন্য কেউ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন চাননি। পুনট ইউনিয়নে কোনো প্রার্থী না থাকায় দলীয় মনোনয়নের জন্য এককভাবে তাঁর নাম পাঠানো হয়। তাঁকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, পুনট ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী আবদুল কুদ্দুস ছাড়া অন্য কেউ মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি। ২ নভেম্বর ছিল মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। আজ ৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের শেষ দিন। এই দিন সকালে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের পর আওয়ামী লীগের প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এই নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বলেন, পুনট ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে একক প্রার্থী থাকায় আবদুল কুদ্দুস ফকির বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন