default-image

টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলায় মসজিদের জায়গা নিয়ে বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত এক ব্যক্তি ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল মঙ্গলবার ভোরে মারা গেছেন। এ ঘটনায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা হয়েছে।

মৃত ব্যক্তির নাম মিজানুর রহমান ওরফে বাবুল (৪২)। তিনি নাগবাড়ি ইউনিয়নের কদিম খশিল্লা গ্রামের আবদুর রশিদের ছেলে ও বেহালাবাড়ি কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক ছিলেন।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মিজানুর রহমানের দাদি উপজেলার নাগবাড়ি ইউনিয়নের কদিম খশিল্লা গ্রামে মসজিদ নির্মাণের জন্য জমি দান করেন। ওই জমিতে মাটি ভরাট করে মসজিদ ঘর নির্মাণ করা হয়। নির্মাণ শেষে পার্শ্ববর্তী জমির মালিক কোরবান আলী মসজিদের ভেতর তাঁর জায়গা রয়েছে বলে দাবি করেন। এ নিয়ে গত রোববার সকালে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে প্রতিপক্ষের হামলায় মিজানুর রহমান, লাবু ও জাহিদ আহত হন। স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। মাথায় গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত মিজানুর রহমানের অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে গতকাল ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। ঢাকায় ময়নাতদন্ত শেষে মঙ্গলবার তাঁর লাশ নিজ গ্রাম কদিম খশিল্লায় দাফন করা হয়।

কালিহাতী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফজলুর রহমান জানান, ঘটনার পরদিন মিজানুরের চাচাতো ভাই জিয়াউর রহমান বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। মামলায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন