default-image

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ওড়াকান্দি থেকে ঢাকার পথে রওনা হয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আজ শনিবার বেলা ১টা ৫৫ মিনিটে তাঁকে বহন করা হেলিকপ্টারটি ওড়াকান্দি ঠাকুর বাড়ির সামনের হেলিপ্যাড থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়।

এর আগে ওড়াকান্দিতে মতুয়া অনুসারীদের অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন নরেন্দ্র মোদি। বক্তৃতায় তিনি প্রয়াত হরিচাঁদ ঠাকুরকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন। নরেন্দ্র মোদি বলেন, হরিচাঁদ ঠাকুর পিছিয়ে পড়া লোকদের নিয়ে কাজ করেছেন। তিনি হিন্দু সম্প্রদায়ের এক অনন্য মানুষ। তাঁর এ সফরের মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে বলেও মন্তব্য করেন নরেন্দ্র মোদি।

বেলা সাড়ে ১২টায় নরেন্দ্র মোদি টুঙ্গিপাড়া থেকে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ওড়াকান্দি ঠাকুর বাড়ির সামনের হেলিপ্যাডে অবতরণ করেন। সেখান থেকে তিনি মতুয়াদের প্রধান তীর্থ পীঠ শ্রীধাম ওড়াকান্দিতে হরিচাঁদ মন্দিরে যান এবং সেখানে পূজা দেন। পরে তিনি ঠাকুর পরিবারের সদস্য ও মতুয়া প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে মতুয়া আচার্য পদ্মনাভ ঠাকুর বলেন, ঠাকুর পরিবারের সদস্য ও মতুয়া প্রতিনিধিদের সঙ্গে নরেন্দ্র মোদি কথা বলেছেন। সারা দেশ থেকে সাড়ে তিন শ মতুয়া প্রতিনিধি নরেন্দ্র মোদির এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন। মোদির এই সফরের মধ্যে দিয়ে দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক আরও নিবিড় হবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন।

এদিকে আজ বেলা ১১টা ৩৮ মিনিটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। এ জন্য সাতক্ষীরা থেকে হেলিকপ্টারে করে বেলা ১১টা ২৫ মিনিটে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধ কমপ্লেক্স সংলগ্ন হেলিপ্যাডে পৌঁছান তিনি। সেখান থেকে বঙ্গবন্ধু সমাধিসৌধের দ্বিতীয় গেটে গেলে নরেন্দ্র মোদিকে অভ্যর্থনা জানান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এরপর সেখান থেকে বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী। ১১টা ৫৩ মিনিটে তিনি পরিদর্শন বইতে সাক্ষর করেন। এরপর দুপুর ১২টার দিকে সেখানে একটি বকুল গাছ রোপণ করেন করেন মোদি। সেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে প্রায় দেড় মিনিট একান্তে কথা বলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। পরে ১২টা ১৩ মিনিটে কাশিয়ানী উপজেলার ওড়াকান্দির উদ্দেশে টুঙ্গিপাড়া ছাড়েন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে শনিবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে সাতক্ষীরার যশোরেশ্বরী কালীমন্দিরে পূজা দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ জন্য সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে তাঁকে বহনকারী হেলিকপ্টার ঈশ্বরীপুরের হেলিপ্যাডে অবতরণ করে। সেখান থেকে তিনি কালীমন্দিরে যান।

এ দিকে বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিক আলোচনা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরপর সেখান থেকে মোদি বঙ্গভবনে যাবেন। সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে ঢাকা ছেড়ে যাবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

করোনা মহামারি শুরুর পর নরেন্দ্র মোদি প্রথম বিদেশ সফর করছেন। আর ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মোদির এটা দ্বিতীয় ঢাকা সফর। এর আগে ২০১৫ সালের জুনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে শীর্ষ বৈঠকে যোগ দিতে ঢাকায় এসেছিলেন মোদি।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন