বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সংবাদ সম্মেলনে জানান, সকালে নগরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেওয়া শেষে তিনি চনপাড়া এলাকার বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে যান। এ সময় কেন্দ্রগুলোতে তাঁর এজেন্ট দেখতে না পেয়ে এজেন্টদের বাড়িতে যান। এজেন্টদের কাছে জানতে পারেন নৌকার সমর্থকেরা তিন দিন ধরে তাঁর সম্ভাব্য এজেন্টদের হুমকি-ধমকি দিচ্ছেন, এলাকায় থাকতে দিচ্ছেন না । এ বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ জানিয়েও কোনো প্রতিকার না পেয়ে তিনি নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন।

তবে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহেদ আলী ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান গুলজারের অভিযোগ অস্বীকার করেন।

মাহবুবুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ‘চনপাড়া এলাকায় সকাল থেকে আমি এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপস্থিত আছি। কোনো ধরনের অনিয়ম চোখে পড়েনি। চশমা প্রতীকের ওই প্রার্থীও আমাদের কাছে কোনো অভিযোগ করেননি।’

অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাহেদ আলী প্রথম আলোকে জানান, আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমানের কাছে গুলজার তাঁর ভোট বিক্রি করে দিয়েছেন। নিজের বিক্রি হয়ে যাওয়াকে বৈধতা দিতেই তিনি এমন অভিযোগ করেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন