default-image

হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতালের দিন কিশোরগঞ্জে নাশকতার ঘটনায় হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা ও কিশোরগঞ্জ জেলা সভাপতি (ভেঙে দেওয়া কমিটি) এবং জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মুহাম্মদুল্লাহ জামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার বেলা তিনটার দিকে কিশোরগঞ্জ শহরতলির সতাল এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

হেফাজত নেতা মাওলানা মুহাম্মদুল্লাহ জামী কিশোরগঞ্জ শহরের পূর্ব তারাপাশা এলাকার মৃত মাওলানা আবদুর রহমান জামীর ছেলে। তিনি কিশোরগঞ্জ শহরের বয়লা এলাকায় প্রতিষ্ঠিত ফাতিমাতুয যোহরা কওমি মহিলা মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এবং রাজধানীর মিরপুরের পল্লবী কেন্দ্রীয় মসজিদের খতিব।

ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে করা মামলায় হেফাজত নেতা মাওলানা মুহাম্মদুল্লাহ জামী সন্দেহভাজন আসামি হওয়ায় তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুবকর সিদ্দিক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হেফাজতের গত ২৮ মার্চের হরতাল ও বিএনপির ৩০ মার্চের কর্মসূচি ঘিরে সন্ত্রাসী ও নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের ঘটনায় মোট পাঁচটি মামলা করা হয়। এর মধ্যে তিনটি মামলা পুলিশের পক্ষ থেকে, একটি মামলা জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এবং অপর মামলাটি জেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে করা হয়। এর মধ্যে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে করা মামলায় হেফাজত নেতা মাওলানা মুহাম্মদুল্লাহ জামী সন্দেহভাজন আসামি হওয়ায় তাঁকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে আজ বেলা তিনটার দিকে কিশোরগঞ্জ শহরতলির সতাল এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন