এর আগে হঠাৎ কামরুল আহসান অসুস্থ বোধ করলে রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে তাঁকে কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁর অবস্থার অবনতি হয়। ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি মারা যান। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর। তিনি স্ত্রী, ছয় ছেলে, আত্মীয়স্বজন ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

কামরুল আহসান মিঠামইন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে ২০০৯ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেছেন। জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে ২০১৬ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত সম্মেলনে তিনি সভাপতি নির্বাচিত হন।

কামরুল আহসানের ছেলে মাহমুদুল আহসান বলেন, বাদ জোহর জেলা শহরের ঐতিহাসিক শহীদি মসজিদ প্রাঙ্গণে কামরুল আহসানের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে দ্বিতীয় জানাজা শেষে জেলার মিঠামইনের মহিষারকান্দি গ্রামের নিজ বাড়িতে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন