বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে কলেজের চেয়ারম্যান শাহ মো. সেলিম বলেন, ‘গত শনিবার জেলা করোনা প্রতিরোধবিষয়ক কমিটি কুমিল্লার তিনটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজের সঙ্গে সভা করে। ওই সভায় তিনটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজকে করোনা রোগীদের সেবা দেওয়ার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আমরা ২০ শয্যার করোনা ইউনিট চালু করেছি। শিগগিরই আরও ৩০ শয্যার করোনা আইসোলেশন সেন্টার ও আইসিইউ চালু করা হবে। রোগীরা এখানে দ্রুত এসে সেবা নিতে পারবেন।’

সাংসদ আ ক ম বাহাউদ্দিন বলেন, ভালো পরিবেশে এখানে করোনা রোগীরা সেবা নিতে পারবেন। কুমিল্লায় সবার আগে ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজ করোনা রোগীদের সেবায় এগিয়ে এল।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন