বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ শনিবার সিলেটে সুজনের বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় বদিউল আলম মজুমদার এসব কথা বলেন। নগরীর ধোপাদীঘির পূর্বপাড় এলাকার একটি রেস্তোরাঁর সম্মেলনকক্ষে এই প্রতিনিধি সভায় সিলেট বিভাগের জেলা ও বিভিন্ন উপজেলার সুজনের সাংগঠনিক প্রতিনিধিরা অংশ নেন। সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত প্রতিনিধি সভার প্রথম পর্বে সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা থেকে সুজন প্রতিনিধিরা সামাজিক, রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটসহ সাম্প্রতিক সময়ে তৃণমূলের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির পরিবেশ তুলে ধরেন।

বদিউল আলম মজুমদার বলেন, কোনো রাজনীতি নয়, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা অন্তরে ধারণ করতে হবে। তবেই বারুদের স্তূপ এড়িয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথ পাওয়া যাবে।

দুর্গাপূজার সময় কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সহিংসতা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার অপতৎপরতার বিষয়টি সুজন প্রতিনিধিদের আলোচনায় উঠে আসে। এ প্রসঙ্গে তাঁরা জানান, বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র। এ চেতনা থেকে মুক্তিযুদ্ধে দেশটি স্বাধীন হয়েছে। কিন্তু রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে সাম্প্রদায়িক ঘটনা একের পর এক ঘটছে। কিন্তু এসব ঘটনার সুষ্ঠু বিচার ও অপরাধীদের শাস্তি দেওয়া নিয়ে বড় দুই দলে দোষারূপ করার রাজনীতি চলছে। এতে পরিস্থিতি আরও অশান্ত হওয়ার দিকে ধাবিত হচ্ছে। সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিচার হলে পুনরাবৃত্তি ঠেকানো সম্ভব হতো।

সুজন সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার এ পরিস্থিতি মোকাবিলায় সর্বস্তরের মানুষকে সচেতন করে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘সাম্প্রদায়িকতার এ জীবাণু নাশ করতে হবে। সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনাগুলো যদি মুক্তিযুদ্ধের সময় ঘটত, তাহলে আমাদের যে ভূমিকা পালন করতে হতো, ঠিক সেই ভূমিকা এখন পালন করতে হবে। সহনশীলতার সর্বোচ্চ পর্যায়ে অবস্থান করতে হবে। রাজনৈতিক স্বার্থপরতাকে দৃঢ়ভাবে মোকাবিলা করতে হবে। ধর্ম থেকে রাজনীতি দূরে রাখতে হবে, ভোটের রাজনীতিতে ধর্মকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার বন্ধ করতে হবে। আমাদের মানসিকতা ও দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে হবে। কেননা এই দেশ জাতি-ধর্ম-বর্ণনির্বিশেষে সবার।’

জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচনব্যবস্থা নিয়ে বদিউল আলম মজুমদার জানান, বাংলাদেশের নির্বাচনব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। নির্বাচন নির্বাসনে চলে গেছে। মানুষের ভোটাধিকার হরণ হয়েছে, নির্বাচনের নামে দেশে প্রহসন চলছে। এ থেকে উত্তরণের জন্য সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, ভোটাধিকার রক্ষাসহ সামাজিক স্থিতিশীলতায় বদিউল আলম মজুমদার সিলেট বিভাগের প্রতিনিধিদের আগামী নভেম্বর থেকে ‘সুজন নতুন সদস্য সংগ্রহ অভিযান’ শুরু করার প্রস্তাব করেন। প্রতিনিধিদের সর্বসম্মতিক্রমে নভেম্বরজুড়ে সুজনের নতুন সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরুর সিদ্ধান্ত হয়।

সুজন সিলেটের সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সিলেটের সম্পাদক শাহ সাহেদার সঞ্চালনায় বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় ‘হাওর বাঁচাও আন্দোলন’–এর কেন্দ্রীয় সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সুফিয়ান, সুনামগঞ্জ জেলা সুজনের সহসভাপতি আলী হায়দার, মৌলভীবাজার জেলা সভাপতি সাদিক আহমেদ, হবিগঞ্জ জেলার সহসভাপতি মো. আবদুর রকিব, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সমন্বয়কারী শামীম আহমেদ, সিলেট জেলার যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান, রাজশাহী জেলা সুজনের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল আলম মাসুদ আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন