default-image

কুমিল্লা জেলায় নতুন করে ১৩৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছেন জেলার ১৭টি উপজেলার মধ্যে ১৬টির এবং কুমিল্লা সিটি করপোরেশন এলাকার বাসিন্দারা। এদিকে করোনায় সংক্রমিত হয়ে কুমিল্লার আরও তিনজন মারা গেছেন।

জেলা করোনাবিষয়ক ফোকাল পারসন ও ডেপুটি সিভিল সার্জন মো. সাহাদাত হোসেন আজ বৃহস্পতিবার প্রথম আলোকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ নিয়ে কুমিল্লা জেলায় করোনায় সংক্রমিত হিসেবে শনাক্ত হলো মোট ৩ হাজার ৬৯৯ জন। এ পর্যন্ত করোনায় জেলায় মারা গেছেন ১০৩ জন। সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৬১৩ জন।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, আজ কুমিল্লা জেলায় ১৩৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে চৌদ্দগ্রামে ২৬ জন, সিটি করপোরেশন এলাকায় ১৬ জন, হোমনায় ১৫ জন, বরুড়ায় ১১ জন, আদর্শ সদর, লালমাই, মনোহরগঞ্জ ও মুরাদনগরে ৮ জন করে, নাঙ্গলকোটে ৭ জন, লাকসামে ৬ জন, মেঘনায় ৫ জন, চান্দিনা, সদর দক্ষিণ ও তিতাসে ৪ জন করে, বুড়িচং ও ব্রাহ্মণপাড়ায় ৩ জন করে এবং দাউদকান্দিতে ১ জন রয়েছেন।

এদিন করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার ছাড়পত্র পেয়েছেন ৭৯ জন। এর মধ্যে সিটি করপোরেশনে ৪৯ জন, মনোহরগঞ্জ ১৪ জন, আদর্শ সদরে ৭ জন, বুড়িচংয়ে ৬ জন ও মুরাদনগরে ৩ জন রয়েছেন। মারা গেছেন কুমিল্লা সিটি করপোরেশন, চৌদ্দগ্রাম ও ব্রাহ্মণপাড়ায় একজন করে মোট তিনজন।

কুমিল্লা জেলায় এ পর্যন্ত ১৯ হাজার ৪৫২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে আজ পর্যন্ত ১৮ হাজার ৬৭৩ জনের প্রতিবেদন পাওয়া গেছে। এর মধ্যে কুমিল্লা শহরেই করোনা শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ১৬ জনের। এখানে মারা গেছেন ১৪ জন। গত ৯ এপ্রিল কুমিল্লায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিলেন। ১১ এপ্রিল করোনায় জেলায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0