default-image

করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগীদের চিকিৎসার জন্য স্থাপিত কুমিল্লা কোভিড-১৯ হাসপাতালে আজ শুক্রবার ভোর পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দুজন এবং উপসর্গ নিয়ে ছয়জন মারা গেছেন। মৃত ব্যক্তিদের মধ্যে পাঁচজন পুরুষ ও তিনজন নারী। হাসপাতালের পরিচালক মো. মুজিবুর রহমান আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় প্রথম আলোকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে আজ সকাল সাড়ে ছয়টায় করোনায় মারা গেছেন কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার ৪৫ বছরের এক পুরুষ। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দুইটায় নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) করোনায় মারা গেছেন কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার ৫০ বছরের এক নারী। কোভিডের উপসর্গ নিয়ে গতকাল রাত ২ টা ৩০ মিনিটে মারা গেছেন কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ৭০ বছরের এক বৃদ্ধা, আজ সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৬০ বছরের এক পুরুষ, গতকাল রাত আটটায় একই উপজেলার ৮৫ বছরের এক বৃদ্ধ ও রাত আটটায় একই উপজেলার ২৭ বছরের এক তরুণী, রাত নয়টা ৫০ মিনিটে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ৪৫ বছরের এক পুরুষ এবং রাত ১০টা ২০ মিনিটে কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার ৪৫ বছরের এক পুরুষ মারা গেছেন।

হাসপাতালের তথ্য শাখার সহকারী সার্জন মুক্তা রানী ভূঁইয়া আজ সকাল ১০টায় প্রথম আলোকে বলেন, বর্তমানে কোভিড হাসপাতালে ১১৫ জন রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে করোনায় সংক্রমিত ৩৯ জন ও উপসর্গ নিয়ে ৭৬ জন রয়েছেন। আজ নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ২৫ জন। এ হাসপাতালে গত ৩ জুন থেকে আজ পর্যন্ত ৮৫২ জন ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে সেবা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৭২ জন। এ পর্যন্ত মারা গেছেন ১৬৬ জন; এর মধ্যে করোনায় ২৮ জন এবং উপসর্গ নিয়ে ১৩৮ জন।

হাসপাতালের পরিচালক মো. মুজিবুর রহমান বলেন, আজ মৃত্যুর সংখ্যা বেশি। দুজন করোনায় এবং ছয়জন উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0