কুমিল্লা কোভিড হাসপাতালে তিনজনের মৃত্যু

বিজ্ঞাপন
default-image

কুমিল্লা কোভিড-১৯ হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় শ্বাসকষ্ট, জ্বর, সর্দিসহ করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন দুজন। একই সময়ে করোনায় সংক্রমিত হিসেবে শনাক্ত আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে এই হাসপাতালে।

মারা যাওয়া তিনজনই পুরুষ। তাঁদের বাড়ি কুমিল্লা সিটি করপোরেশন, আদর্শ সদর উপজেলা ও কুমিল্লা শহরতলি এলাকায়। হাসপাতালের পরিচালক মো. মুজিবুর রহমান আজ শুক্রবার সকালে প্রথম আলোকে এসব তথ্য জানান।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, শ্বাসকষ্ট, জ্বর, সর্দি নিয়ে হাসপাতালের পঞ্চম তলায় ভর্তি ছিলেন কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের নেউরা এলাকার একজন। ৪০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি গতকাল বৃহস্পতিবার রাত নয়টা ১৫ মিনিটে মারা যান। একই ধরনের উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালের দ্বিতীয়তলায় ভর্তি ছিলেন কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলার একজন। তিনি গতকাল সন্ধ্যা ছয়টায় মৃত্যুবরণ করেন। এদিকে করোনা ‘পজিটিভ’ হিসেবে শনাক্ত এক ব্যক্তি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি ছিলেন। কুমিল্লা শহরতলির বালুতুপা এলাকার ৫৭ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি আজ ভোররাত চারটায় মারা যান।

হাসপাতালের সহকারী সার্জন মারজানা আক্তার বলেন, বর্তমানে এই হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৩১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৮০ জন ও নারী ৫১ জন। মোট রোগীর মধ্যে করোনা ‘পজিটিভ’ হিসেবে শনাক্ত ৬০ জন। তাঁদের মধ্যে ৩৬ জন পুরুষ। বর্তমানে আইসিইউতে ১৮ জন ভর্তি আছেন।

গত ৩ জুন থেকে চালু হয় কুমিল্লা কোভিড-১৯ হাসপাতাল। এটি কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ক্যাম্পাসে স্থাপিত। ৪ জুন থেকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মারা যাওয়া ব্যক্তিদের তথ্য প্রকাশ করে আসছে। এর মধ্যে ২৭ জুলাই ছাড়া প্রতিদিনই এই হাসপাতালে কেউ না কেউ মারা গেছেন। আজ সকাল পর্যন্ত ৬৪ দিনে মারা গেছেন ৩০৮ জন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন