কুমিল্লা কোভিড হাসপাতালে ৮ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃত্যু

বিজ্ঞাপন
default-image

করোনার রোগীদের চিকিৎসার জন্য স্থাপিত কুমিল্লা কোভিড-১৯ হাসপাতালে উপসর্গ নিয়ে ছয়জন মারা গেছেন। গতকাল শনিবার রাত থেকে আজ রোববার ভোর পর্যন্ত তাঁরা মারা যান। এর মধ্যে দুজন নারী ও চারজন পুরুষ। সোয়া আট ঘণ্টার ব্যবধানে তাঁরা মারা যান। হাসপাতালের পরিচালক মো. মুজিবুর রহমান প্রথম আলোকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আজ ভোররাত চারটায় হাসপাতালে মারা যান চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৪৮ বছরের এক ব্যক্তি। তিনি ১৪ জুন এই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। কুমিল্লার লালমাই উপজেলার বাগমারা এলাকার ৬০ বছরের এক বৃদ্ধ ২৫ জুন ভর্তি হন। গতকাল রাত ১২টা ৪৫ মিনিটে তিনি মারা যান। চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ৭০ বছরের এক বৃদ্ধ ২৪ জুন ভর্তি হয়ে গতকাল রাত ১০টা ১০ মিনিটে মারা যান। একই উপজেলার ৫৬ বছরের এক নারী গতকাল ভর্তি হয়ে রাত ১০টায় মারা যান। ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার ৭০ বছরের এক বৃদ্ধা ২৫ জুন ভর্তি হয়ে গতকাল রাত সাড়ে নয়টায় মারা যান। দেবীদ্বার উপজেলার ৭২ বছরের এক বৃদ্ধ গতকাল ভর্তি হয়ে সন্ধ্যা ৭টা ৩৯ মিনিটে মারা যান।

হাসপাতালের পরিচালক চিকিৎসক মো. মুজিবুর রহমান বলেন, বর্তমানে কোভিড হাসপাতালে ১০৩ জন রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে করোনার রোগী ২৮ জন এবং উপসর্গ নিয়ে আছেন ৭৫ জন। আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন নয়জন। আজ নতুন করে হয়েছেন ২১ জন। এখানে যাঁরা ভর্তি হতে আসেন, তাঁরা সংকটাপন্ন অবস্থায় আসেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন